• বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৪২ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
এড. আমজাদ হোসেন কখনও অর্থবিত্তের জন্য রাজনীতি করেননি-এড.ফরিদুল ইসলাম এড.আমজাদ হোসেনের ২য় মৃত্যুবার্ষিকী সফলের লক্ষ্যে প্রস্তুতি সভা সম্পন্ন পূর্ব বড় ভেওলা মাহমুদিয়া হেফজখানা ও এতিমখানায় সাহায্যের আবেদন চকরিয়ায় দখলবাজরা কেটে নিল সামাজিক বনায়নের শতাধিক গাছ মানবিক সাহায্যের আবেদন জাফর আলম এমপি ও জাহেদুল ইসলাম লিটু কে বিশাল সংবর্ধনা আধুনিক ও বাসযোগ্য চকরিয়া পৌরসভা রূপান্তরে কাজ করবো-মেয়র প্রার্থী এড. ফয়সাল চকরিয়ায় ছাত্রলীগ সভাপতিকে নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ চকরিয়া বিএমচর ইউপি কার্যালয়ে হামলা ও ভাংচুর, চেয়ারম্যানসহ আহত ৪ চকরিয়া কোনাখালীতে পৈতৃক ভিটা জবর দখলে নিতে সন্ত্রাসী হামলা

হারবাংয়ের আলোচিত ঘটনার মুলহোতা গরুচোর সিন্ডিকেট সেই মহিলাদের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা

মনসুর মহসিন, চকরিয়া সংবাদদাতা / ৯২২ সময় দেখুন
আপডেট : সোমবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০

কক্সবাজারের চকরিয়ার হারবাংয়ের আলোচিত মা-মেয়েকে নির্যাতনের ঘটনায় স্থানীয় চেয়ারম্যানকে জড়িয়ে সাজানো মিথ্যা মামলার বাদীর বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলার তথ্য উপাত্ত পাওয়া গেছে। এই মহিলারা আন্তঃবিভাগ গরুচোর সিন্ডিকেটের সদস্য বলে নিশ্চিত হওয়া যায়। চকরিয়ার আলোচিত গঠনায় জনতার হাতে ধৃত চোর মহিলাদের বিরুদ্ধে ২০১০ সালে চট্টগ্রামের বায়েজিদ থানায় গরু চুরির মামলা হয় যার নং জিআর ১৪৮/১০ তাং ১৬/০২/২০১০সাল।
একই আসামিদের বিরুদ্ধে ২০১৯ সালে সাতকানিয়া থানায় গরুচুরির মামলা যার নং ২৭/১৯ তাং ২৮/০২/২০১৯সাল,
এ বছরের জানুয়ারী মাসে ও জুন মাসে ঐ একই আসামীদের নামে চন্দনাইশ থানায় পৃথক পৃথক ভাবে দুইটি মামলা হয়। মামলা দুইটির নং জিআর ০৮/২০
তাং ১০/০১/২০২০ইং এবং
জিআর মামলা নং ০৩/২০
তাং ১১/০৬/২০২০সাল।
এছাড়াও তাদের নামে চট্টগ্রামের বিভিন্ন থানায় অহরহ মামলা রয়েছে বলে নির্ভরযোগ্য  সূত্রে জানা যায়। এই মহিলা এবং তার ছেলে-মেয়েরা চুরি করতে গিয়ে একাধিক বার গ্রেফতার হয়েছেন।
এই চোর সিন্ডিকেট দের বাঁচানোর জন্যে চেয়ারম্যান মিরানের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করিয়েছন স্থানীয় প্রভাবশালী মহল।
সাম্প্রতিক সময়ে কয়েকটি অনলাইনে বিষয়টিকে ভিন্ন ভাবে উত্তাপন করছেন বলে অভিযোগ করেন চেয়ারম্যান মিরান। তিনি বলেন- তদন্তাধীন বিষয়টিকে ভিন্নভাবে উপস্থাপন করে কয়েকটি মিডিয়ায়। আমি এধরনের মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর সংবাদের তীব্র্র্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
উল্লেখ্য যে গত ৫ সেপ্টেম্বর চকরিয়া নিউজ ডট কম নামক অনলাইন পত্রিকায় একটি সংবাদ পরিবেষণ করা হয়েছে, যেটিতে উল্লেখ করা হয়েছে, “পুলিশের পক্ষ থেকে আদালতে তদন্ত রিপোর্ট জমা দেওয়া হয়েছে। তদন্ত অফিসার হারবাং পুলিশ ফাঁড়ির ইন্সপেক্টর আমিনুল ইসলাম এই তদন্ত রিপোর্ট জমা দিয়েছেন বলে জানানো হয়। হারবাংয়ের ঘটনায় চেয়ারম্যান মিরানের সম্পৃক্তা পাওয়া গেছে।”
এ বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার জন্যে হারবাং পুলিশ ফাঁড়ির আইসি ইন্সপেক্টর আমিনুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে, তিনি স্পষ্ট করে বলেন- আমি এধরনের কোন রিপোর্ট দেওয়ার বিষয়ে অবগত নই। আর এই মামলার আমি তদন্ত অফিসারও নই, সুতরাং আমার রিপোর্ট দেওয়ার প্রশ্নেই উঠে না। পত্রিকায় নিউজের বিষয়ে তিনি বলেন, আমার সাথে কোন ধরনের যোগাযোগ না করে, আমার নাম ব্যবহার করে নিউজ করেছেন। আমি এর তীব্র্র্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category