• সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১২:৪৮ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
এড. আমজাদ হোসেন কখনও অর্থবিত্তের জন্য রাজনীতি করেননি-এড.ফরিদুল ইসলাম এড.আমজাদ হোসেনের ২য় মৃত্যুবার্ষিকী সফলের লক্ষ্যে প্রস্তুতি সভা সম্পন্ন পূর্ব বড় ভেওলা মাহমুদিয়া হেফজখানা ও এতিমখানায় সাহায্যের আবেদন চকরিয়ায় দখলবাজরা কেটে নিল সামাজিক বনায়নের শতাধিক গাছ মানবিক সাহায্যের আবেদন জাফর আলম এমপি ও জাহেদুল ইসলাম লিটু কে বিশাল সংবর্ধনা আধুনিক ও বাসযোগ্য চকরিয়া পৌরসভা রূপান্তরে কাজ করবো-মেয়র প্রার্থী এড. ফয়সাল চকরিয়ায় ছাত্রলীগ সভাপতিকে নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ চকরিয়া বিএমচর ইউপি কার্যালয়ে হামলা ও ভাংচুর, চেয়ারম্যানসহ আহত ৪ চকরিয়া কোনাখালীতে পৈতৃক ভিটা জবর দখলে নিতে সন্ত্রাসী হামলা

ভেসে গেছে সহস্রাধিক পুকুর; সিংড়া পৌরসভা বন্যা কবলিত আশ্রয়কেন্দ্রে ছুঁটছেন বন্যা দুর্গতরা

রাজু আহমেদ, সিংড়া / ৭২ সময় দেখুন
আপডেট : মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০

নাটোরের সিংড়ায় আত্রাই নদীর পানি বিপদসীমার ৯০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় হঠাৎ করেই চলনবিল অধ্যুষিত নাটোরের সিংড়া পৌর শহরে হু হু করে ঢুকতে শুরু করেছে বন্যার পানি। মাত্র কয়েক ঘন্টার ব্যবধানে বন্যার পানি শহরের প্রধান সড়ক, ব্যবসা কেন্দ্র, আবাসিক এলাকা থেকে শুরু করে ঘর পর্যন্ত প্রবেশ করেছে। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এখন পর্যন্ত দু শতাধিক পরিবার বাড়ি-ঘর ছেড়ে আশ্রয় নিয়েছে বিভিন্ন আশ্রয় কেন্দ্রে। পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। অপরদিকে সহস্রাধিক পুকুর ভেসে যাওয়ায় মৎস্য চাষীদের আর্তনাদ অবস্থায়। তলিয়ে গেছে ২৫ শ হেক্টর রোপা আমন এবং সবজি বীজতলা।

মঙ্গলবার দুপুরে জরুরী ভিত্তিতে পৌর এলাকার বানভাসী ৫ শতাধিক পরিবারের মধ্যে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন সিংড়া পৌরসভার মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌস।
বন্যা কবলিত পৌরসভার বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করে দুর্গতদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করেছেন জেলা প্রশাসক মো. শাহরিয়াজ।

সিংড়া পৌরসভার মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌস বলেন, ‘পৌরসভার কমবেশি সকল ওায়ার্ডেই বন্যার পানি প্রবেশ করেছে। ৫, ৬ নং ওয়ার্ডে সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগ। এছাড়া পৌরসভার হাটবাজারগুলোতে প্লাবিত হওয়ায় কেনাবেচা প্রায় বন্ধ রয়েছে। আমরা সকাল থেকে সমানতালে ত্রাণ বিতরণ ও দুর্গতদের আশ্রয়কেন্দ্রে আনার কাজ করছি। সার্বিক বিষয় পর্যবেক্ষণ করছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী।’

জেলা প্রশাসক মো. শাহরিয়াজ বলেন, ‘আজকে তাৎক্ষণিকভাবে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ হতে ২৫০ পরিবারের মাঝে নগদ ২০০ টাকা এবং ১০ কেজি করে চাল বিতরণ করা হয়েছে। বন্যা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। খাদ্য সহায়তা আরও বাড়ানো হবে।’

এদিকে, পৌর এলাকার বাইরে সিংড়ার নীচু এলাকাগুলোতে প্রবেশ করেছে বন্যার পানি। এতে মাঠে থাকা আউশ ধান পানিতে তলিয়ে গেছে। তাজপুর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠের সামনে রাস্তাটি তীব্র স্রোতে ভেঙ্গে গেছে। উপজেলার গ্রামীন সড়কগুলো পানির নীচে চলে যাওয়ায় আবারও ভাঙ্গন আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। মহেশচন্দ্রপুর কলকলি বাঁধ ভেঙ্গে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়েছে।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category